Voor een sterk en krachtig mobile brand | BrainCross Mobile Eventsআমাদের পরিবার এবং বন্ধুবান্ধবের মধ্যে যদি কেউ খুবই দুষ্টু ও দুরন্ত হয় তবে তাকে আমরা পাজি, বাচাল ও খাটাশ বলে থাকি এবং সেই সাথে সাথে যারা খু্বই নরম, কথা কমবলে তাদের আমরা ম্যানা, বলদ বলে থাকি। ঠিক তেমনি, ব্র্যান্ডের ব্যাপারটাও কিন্তু অনেকটা একই। টয়োটা গাড়ী শুনলেই আমাদের মাথায় কাজ করে এটার মেইন্টেনেনস খরচ অনেক কম এবং দীর্ঘদিন ব্যবহার করা যাবে, লেক্সাস বা জাগুয়ার-এর নাম শুনলেই মনে হয় ব্যয়বহুল গাড়ী এবং টাটার নাম শুনলেই মনে হয় কমদামী এবং খুববেশিদিন রাস্তায় চালানো যাবে না । দেশীয় কোম্পানী স্কয়ার গ্রুপ, বেক্সিমকো, এসিআই গ্রুপের পন্যর নাম শুনলেই ভাল বলে সবাই মনে করে । খবরে কাগজ প্রথম আলোর কথা আসলেই মানুষ সংবাদটাকে নির্ভরযোগ্য মনে করে, অন্যান্য ব্র্যান্ড নকিয়া, আইফোন, স্যামসাং, অ্যাপল, কোকাকোলা এবং এলিভেটর ব্র্যান্ড ওটিচ, সিন্ডলার, কোনে, মিৎসুবিসি আরো যত আরো যত নামীদামী ব্র্যান্ড- এরা কি একদিনে এই সাফল্য অর্জন করেছে? নিশ্চয়ই নয়। ব্র্যান্ড বিল্ডিং হুটহাট করে হয় না, ব্র্যান্ডের পরিচিতি থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধাপ অতিক্রম করে কাস্টমার বন্ডিং-এর জায়গাটা তৈরী হয়।

 

Love You, Red, Valentine, Love, Designআমার মতে ব্যান্ডিং অনেকটাই প্রেমে পড়ার গল্পের মতই ।যদি কোন প্রডাক্ট দেখতে আকর্ষনীয় এবং কোয়ালিটি সম্পন্ন না হয় তবে তাহা কোনদিনই দীর্ঘস্থায়ীভাবে তাদের ক্রেতাদের মধ্যে কোন প্রভাব ফেলতে পারবে না । প্রেমে পড়ার জন্য প্রেমিক যেমন নিজেকে যেমন পরিপাটি করে, চুলে জেল দিয়ে, মান্জা মেরে সুন্দরী মেয়ের আশেপাশে ঘুরঘুর করে তার নজরে পড়ার জন্য এবং তাকে ইমপ্রেস করার জন্য, যেকোনো ব্র্যান্ড-এর ক্ষেত্রেও ব্যাপারটা তাই – অ্যাডের মাধ্যমে টার্গেট কাস্টমারদের নজরে পড়ার চেষ্টা করাটাই হলো প্রথম ধাপ, দ্বিতীয় ধাপ হচ্ছে ‘প্রাসঙ্গিকতা’ পরিপাটি হয়ে যে ছেলেটি সুন্দরী মেয়ের আশেপাশে ঘুরঘুর করল, কিন্তু সেই সুন্দরীর যদি অলরেডি প্রেমিক থেকে থাকে, তাহলে তো কোন রেজাল্ট আসবে না । সুতারাং, যদি কেউ অন্য একটা ব্র্যান্ডের প্রডাক্ট কোয়ালিটি ও সার্ভিস এর উপর সন্তুষ্ট থাকে, তবে সেই ব্র্যান্ডের কোনো খারাপ কিছু না পেলে (সেই সুন্দরীর বয়ফ্রেন্ডের সাথে বড় কোনো ঝামেলা না হলে) এবং আপনার ব্র্যান্ডের বাড়তি যোগ্যতা (অর্থাৎ, আপনার বাড়তি কোনো আকর্ষনীয় গুন না থাকলে) ‘প্রাসঙ্গিকতা’ শুরুতেই মাঠে মারা যাবে।

 

প্রাসঙ্গিকতা-র পরের ধাপ হচ্ছে পারফরম্যান্স। দ্বিতীয় ধাপে সফল হলেই কোন প্রডাক্ট বিক্রয় করা সম্ভম হবে । ক্রেতার সাথে Brand protection – how to keep your business safe onlineব্যবসায়িক সম্পর্কটা দীর্ঘস্থায়ী করার একমাত্র মাধ্যম হচ্ছে আপনার প্রডাক্ট কিংবা সার্ভিসের পারফরম্যান্সের ওপরই নির্ভর করবে কাস্টমার সেটা বারবার কিনবে কি কিনবে না । একটা ব্যাপারে খুব সতর্ক থাকা দরকার ওভার প্রমিস ও অন্যর প্রডাক্ট এর ব্যাপারে কোন নেগিটিভ বলাকে ক্রেতা সাধারনত বাটপারি বা ফালতু হিসাবে দেখে সুতারাং পজিটিভ ব্র্যান্ডিং করাই ভাল অন্যথায় আম আর ছালা দুটোই হাতছাড়া হয়। সর্বশেষ ধাপ হচ্ছে বন্ডিং ক্রিয়েট করা, অর্থাৎ কাস্টমারের মনে আপনার প্রডাক্ট ও সার্ভিসের এর ব্যাপারে যেন কোন নেগিটিভ ধারনা না জন্মায় সেটি খু্বই গুরুত্তের সাথে খেয়াল রাখলে দীর্ঘস্থায়ী বন্ডিং গড়ে তোলা সম্ভব ।পরিশেষে আমরা কোয়ালিটি প্রডাক্ট ও সার্ভিস প্রদানের মাধ্যমে আমার ব্র্যান্ডকে ভালোমানের ব্রান্ড হিসাবে দাড় করাতে আন্তরিকভাবে চেষ্টাকরে যাব ইন শাহ্ আল্লাহ। যারা আমার শুভাকাংখি তারা আমার জন্য দোয়া করবেন সফল হওয়ার জন্য এবং যারা ভাল চান না তারাও দোয়া করবেন ব্যর্থ হওয়ার জন্য । আপনাদের সহযোগিতা ও অসহযোগিতাই আমার শক্তি!!!! ধন্যবাদ……